স্ত্রীর পরকীয়ার জেরেই রংপুরের আইনজীবি ও আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিককে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে Rab। নিখোঁজের পাঁচদিন পর একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকে তার গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আইনজীবীর স্ত্রী ও তার প্রেমিকসহ ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার গভীর রাতে রংপুর নগরীর তাজহাট মোল্লাপাড়ার একটি বাড়ি থেকে বিশেষ জজ আদালতের পিপি রথিশ চন্দ্র ভৌমিকের গলিত লাশ উদ্ধার করে Rab। ওই বাড়িটির মালিক স্ত্রী স্নিগ্ধা ভৌমিকের প্রেমিক কামরুল ইসলামের ভাই খাদেমুল ইসলাম।

গত শুক্রবার নিখোঁজ হন রথিশ চন্দ্র ভৌমিক। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোবাইল ফোনের কল লিষ্ট ধরে স্ত্রী স্নিগ্ধার প্রেমিক কামরুল ইসলামকে শনিবার গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গ্রেফতার হয় সিন্ধা ভৌমিক। পরে তাদের দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ওই রাতেই রথিশ চন্দ্রের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে, Rab-এর এক ব্রিফিং-এ ও একই তথ্য জানানো হয়। আইনজীবী রথিশ চন্দ্র ভৌমিক তাজহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ছাড়াও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারন সম্পাদক, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি ছিলেন।

Facebook Comments

You may also like

বীরগঞ্জে ইট ভাটা মালিকের তান্ডবে নারীসহ ৭ জন হাসপাতালে

আবাদি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাওয়ার