নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে বিষধর সাপ ধরতে গিয়ে আমিনা বেগম (৬০) নামে এক নারী ওঝার মৃত্যু হয়েছে গত শুক্রবার সকালে।

নিহত আমিনা উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের সরকারপাড়া গ্রামের আব্দুস সামাদের স্ত্রী।

স্থানীয় আমিনুল ইসলাম জানান, আমিনা বেগম দীর্ঘদিন ধরে সাপে কাটা রোগীদের ঝাড়ফুঁক করতেন। অনেককে তিনি সুস্থ্য করেও তুলেছেন, এরকম নজির রয়েছে। তাছাড়া তিনি সাপও ধরতেন। ঘটনার দিন সকালে পাশ্ববর্তী তারাগঞ্জের আলমপুর ইউনিয়নের বালাপাড়া গ্রামে গিয়ে একটি বিষধর সাপ ধরেন। এ সময় ওই সাপ তাকে দংশন করে। পরে সাপসহ তিনি নিজের বাড়িতে চলে আসেন। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়।

তিনি জানান, আমিনার মৃত্যুর আগে এলাকাবাসী তার স্বামীকে হাসপাতালে নিতে বলেন। কিন্তু এ সময় তার স্বামী বলেন, তার স্ত্রী যদি মারা যায় তাহলে তিনদিনের মধ্যে নাগ-নাগিনী এসে তাকে জীবিত করে তুলবে। তাই তিনি তার স্ত্রীর লাশ দাফন না করে নাগ-নাগিনীর জন্য অপেক্ষা করছেন। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ওই বাড়িতে শত শত মানুষ ভিড় করেছেন।

এ ব্যাপারে কামারপুকুর ইউপি চেয়ারম্যার রেজাউল করিম লোকমান বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। আমি ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। অবস্থা দেখে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূ্ত্র: ডেইলি মিরর ২৪

Facebook Comments

You may also like

বীরগঞ্জে ইট ভাটা মালিকের তান্ডবে নারীসহ ৭ জন হাসপাতালে

আবাদি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাওয়ার