আরিফুল ইসলাম রনি | রশিদ খানের পর বিশ্ব ক্রিকেটকে হয়ত আরও এক স্পিন রত্ন উপহার দিতে যাচ্ছে আফগানিস্তান। নাম মুজিব জাদরান।

বাংলাদেশের ক্রিকেট অনুসারীদের কাছে নামটি খুবই চেনা হওয়ার কথা। কিছুদিন আগেই বাংলাদেশকে বেশ ভুগিয়ে গেছেন। এক ম্যাচে ১৯ রানে ৭ উইকেট, আরেক ম্যাচে ২২ রানে ৪ উইকেটসহ ৫ ম্যাচের সিরিজে নিয়েছিলেন ১৭ উইকেট।

সেই মুজিব এবার হইচই ফেলে দিয়েছেন আরেকটু বড় মঞ্চে, আরও বড় পরিসরে। বলা যায় মুজিবের স্পিনেই অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেল আফগানিস্তান। পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল। ফাইনালে সেই পাকিদেরই ৬৩ রানে গুড়িয়ে দিয়ে জিতেছে ১৮৫ রানে।

টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ২৩ রানে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন মুজিব। সেমিফাইনালে নেপালের বিপক্ষে নিয়েছেন ২৮ রানে ৬টি। ফাইনালে আবার সেই পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৩ রানে ৫ উইকেট। সব মিলিয়ে মাত্র ৫ ম্যাচে ২০ উইকেট নিয়ে ম্যান অব দা টুর্নামেন্ট…

মুজিব অফ স্পিনার। বিশেষত্ব কি, ঠিক জানি না। বাংলাদেশ সিরিজের খেলাগুলি ছিল সিলেটে, দেখা হয়নি। বেশির ভাগ সময়ই নতুন বলে বল করেন। আধুনিক স্পিনারদের জন্য যেটি অস্বাভাবিক কিছু নয়। মুড়ি-মুড়কির মত যেভাবে উইকেট নিচ্ছেন, বিশেষত্ব নিশ্চয়ই আছে। হয়ত খুব শিগগিরই সিনিয়র ক্রিকেটে খেলবেন। তখনই দেখা যাবে…

বয়স অফিসিয়ালি ১৬। এখানে আফগানরা বরাবরই গর্বের সঙ্গে পাকিস্তান সিনড্রোমে আক্রান্ত। রশিদ খনের ১৯ বছর বয়সের সঙ্গে যেমন অনায়াসে ৩-৪ বছর যোগ করা যায়,মুজিবের ক্ষেত্রেও হয়ত একই…

বয়স যেমনই হোক, যুব ক্রিকেট যেভাবে রাঙাচ্ছেন, তাতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মুজিবের অপেক্ষায় থাকাই যায়..!

Facebook Comments

You may also like

বীরগঞ্জে ইট ভাটা মালিকের তান্ডবে নারীসহ ৭ জন হাসপাতালে

আবাদি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাওয়ার