দালাল চক্রের খপ্পরে নিঃস্ব থেকে নিঃস্বতর দশায় ঠাকুরগাঁওয়ের সাঁওতালসহ শতাধিক ভূমিহীন পরিবার। সোনালী ব্যাংক অনুদানের নামে টাকা দিয়ে এখন তাদের ধরিয়ে দিয়েছে ঋণ পরিশোধের নেটিশ। এতে হতবাক তারা। দিকবিদিক হারিয়ে কেউ কেউ এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। অবিশ্বাস্য ধরনের এ প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে বিহিত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

সোনালী ব্যাংক ঠাকুরগাঁও রোড সুগার মিল শাখা থেকে ঋণ পরিশোধের নোটিশ পেয়ে জ্ঞান হারান মাতৃগাঁও সেন্টারপাড়ার দুলহান। সুদে-আসলে তার ও তার স্বামীর ঘাড়ে এখন ৬০ হাজার টাকা ঋণের বোঝা। পরের জমিতে ঘর করে, খেয়ে না খেয়ে থাকলেও ঋণের কথা ভাবেননি কখোনো।

এখন ভুয়া ঋনের বোঝায় মুছড়ে পড়েছে পরিবারটি।তার মতো অসহায় অবস্থা সাঁওতাল সম্প্রদায়ের ২৫টিসহ ওই গ্রামের ভুমিহীন শতাধিক পরিবারের। তাদের অভিযোগ, ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে ভুমিহীনদের সরকারি অনুদানের প্রলোভন দেখায় ব্যাংকের দালালরা। মিথ্যা আশ্বাসকে সত্য প্রমাণের কৌশল হিসেবে ছবি ও ভোটার আইডি কার্ড জমা নিয়ে দেয়া হয় জনপ্রতি দুই/তিন হাজার টাকাও। অভিযোগ স্বীকারও করেছে ব্যাংকের কয়েক দালাল।

তাদের দাবি, ঋণ শোধ দিতে হবে না বলেই গ্রাহক সংগ্রহ করতে বলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। তবে, ব্যাংক ম্যানেজার জানিয়েছেন, ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়ায় তাদের নোটিশ করা হয়েছে। বর্তমানে এ শাখা দালালমুক্ত বলেও দাবি তার। প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস জেলা প্রশাসকের। দোষীদের আইনের আওতায় আনার পাশাপাশি ঋণের দায় থেকে মুক্তিও চায় প্রতারিতরা।

Facebook Comments

You may also like

বীরগঞ্জে ইট ভাটা মালিকের তান্ডবে নারীসহ ৭ জন হাসপাতালে

আবাদি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাওয়ার