আশিক মুন্না | দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় এবার রোপা আমনের বাম্পার ফলন। বন্যা পরবর্তী দুর্যোগকালীন সময় কাটিয়ে সার ও বীজের সংকট না থাকায় উপজেলার প্রতিটি মাঠে এবার রোপা আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। কৃষকের মুখে ফুটেছে হাসির ঝিলিক।

প্রতিটি মাঠে মাঠে এখন কৃষকেরা রোপা আমন ধান কাটা-মাড়াই শুরু করেছে পুরোদমে। উপজেলার বিভিন্ন মাঠ ঘুরে দেখা যায়, কৃষক ও মজুররা দলবদ্ধ ভাবে বিভিন্ন স্থানে ধান কাটা ও মাড়াইয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

চলতি মৌসুমে রোপা আমন ধানের বাম্পার ফলনের পাশাপাশি বাজারে ধানের দাম বেশী থাকায় কৃষকরা বেশ উৎফুল্লতার সাথে ধান কাটা-মাড়াই কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

সহজপুর গ্রামের ধান চাষী আবুল কালাম বলেন, বাজারে চাহিদা ও দাম বেশি হওয়ায় অন্যান্য জাতের তুুুলনায় কাটারী ধানও ভালো চাষ হয়েছে। এজন্য কাটারী ধানের মৌ মৌ গন্ধে ভরে উঠেছে মাঠ। একই কথা বলেন অন্যান্য গ্রামের ধান চাষীরা।

তাই এবছর ধান চাষ ও ফলনের ব্যাপারে সার্বিক বিষয়ে জানতে চাওয়া হয় উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ইয়াসমিন অাক্তারের কাছে।তিনি জানান, এ বছর খানসামা উপজেলায় মোট ১৩,৩৪৫ হেক্টর জমিতে রোপা অামনের চাষ হয়েছে। এছাড়াও গতবারের তুলনায় এবছর ফলনও খুব ভালো।

এর কারন হিসেবে তিনি বলেন, বিগত বন্যায় জমিগুলোয় অনেক পলি জমেছিলো, যার ফলে জমির উর্বরতা অারো বেশি করে বেড়েছে। গতবার অনেক ফসল বিভিন্ন পোকা মাকড়ের অাক্রমনে নষ্ট হওয়ায় কৃষকদের এবার অাগাম সেসকল ক্ষতিকর পোকামাকড়ের হাত থেকে ফসল রক্ষা করার জন্য সচেতনতামুলক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।যারই ফলশ্রুতিতে এবার এত ভালো ফলন হয়েছে।

Facebook Comments

You may also like

বীরগঞ্জে ইট ভাটা মালিকের তান্ডবে নারীসহ ৭ জন হাসপাতালে

আবাদি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাওয়ার