ডেস্ক রিপোর্টঃ 

টেকনাফে মাদকবিরোধী অভিযানে কাউন্সিলর একরামুল হক একরাম নিহতের ঘটনায় ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপ নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

রোববার (৩ জুন) সকালে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীতে মাদকবিরোধী সচেতনতা অনুষ্ঠানে তিনি একথা জানান।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘কোনো অ্যাকসিডেন্ট তদন্তের বাইরে নয়। আমাদের তদন্ত হবে এবং যেখানে যেটা প্রয়োজন কমিটি হওয়ার কিংবা যা হওয়ার সেটা স্বাভাবিক নিয়মভাবেই হবে। এটা হয়েছেও।’

উল্লেখ্য, গত ২৬ মে রাতে টেকনাফ পৌর কাউন্সিলর একরাম ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মারা যান বলে দাবি করে র‌্যাব। তবে পরিবারের অভিযোগ, তাকে বাসা থেকে র‍্যাব এবং ডিজিএফআই এর স্থানীয় দু’জন কর্মকর্তা ডেকে নেওয়ার পর হত্যা করে।

ওই দিনের ঘটনার সময় রাতে একরামের মোবাইল ফোনে তার সঙ্গে স্ত্রী ও সন্তানরা কয়েক দফা কথা বলেন। ‘বন্দুকযুদ্ধের’ সময়ও একরামের ফোন কলটি সচল ছিল। যা তার স্ত্রীর ফোনে রেকর্ড হয়। গত বৃহস্পতিবার কক্সবাজারে সংবাদ সম্মেলন করে একরামের স্ত্রী আয়েশা খাতুন ওই ঘটনার অডিও সাংবাদিকদের শোনান। পরে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি করে।

অডিও প্রকাশের পর র‍্যাবের পক্ষ থেকে প্রকাশ হওয়া অডিও খতিয়ে দেখার কথা জানানো হয়। সে সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গুলিবর্ষণের অন্যান্য ঘটনার মতো এই ঘটনাও তদন্ত করা হবে।

Facebook Comments

You may also like

এমপি প্রার্থী নিজেই করছেন মাইকিং সঙ্গী অটো চালক!

বিশেষ সংবাদদাতাঃ  আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুড়িগ্রাম-১