সেই দিন কত দূরে!
আঁধার ঘুচিয়ে আলোর যুগ আবার আসবে ফিরে?
মানব রচিত বিধানের যত ঘটিয়ে অবসান,
ঘুচিয়ে দিতে মানুষে মানুষে কৃত্রিম ব্যবধান।

বঙ্গদেশে সুখের বিধান কত দিনে হবে জারী,
স্বজল নয়নে পথ চেয়ে আছে কোটি কোটি নর-নারী।
মানুষের আজ ভেঙে গিয়েছে সব ধৈর্যের বাঁধ,
শোষিত,পীড়িত,বঞ্চিত জন করছে আর্তনাদ।
অত্যাচারের ঘোর তামাসায় জগৎ যে দিশেহারা,
অশান্ত মন শান্তির আশায় হয়েছে পাগল পারা।

নৈতিকতার ধ্যান ধারণা সকলি হয়েছে গত-
মানব যেন গো পাশব জীবনে ফিরে যেতে উদ্যত।
হৃদয়ের যত মহৎ বৃত্তি বিলুপ্ত যেন সব,
দিকে দিকে শুনি নির্যাতীতার একি স্বকরুণ রব।
জলে স্থলে একি বিভীষিকা,এ কোন দৃশ্য হেরি,
অত্যাচারেরে অবসান হতে আছে আর কতো দেরী!

জাহেলীয়াদের ঘন কুয়াশায় জগৎ গিয়েছে ঢেকে,
আলোক পিয়াশী মানব-মানবী ফিরিছে কারে ডেকে।
জগৎ জুড়ে করুণ কন্ঠে উঠেছে হাহাকার,
আর দেরী নয়,তরুণ তোমরা ঘুচাও অন্ধকার।

সেই দিন কত দূরে?
হাসবে যেদিন আঁধার ধরণী শান্তিতে আঁকা নূরে।
সোনালী সূর্য পুনরায় তার বিমল কিরণ দানি,
দূর করে দেবে স্তূপকৃত জগতের যত গ্লানি।

ফিরে পাবো মোরা মুক্তি আবার অসহায় মানবতা,
ঘুচবে মোদের সেই দিন জানি হৃদয়ের ব্যাকুলতা।
সোনালী সুর্য উঠবে হেঁসে আঁধারের বুক চিরে,
মানুষেরা তার হারানো সুদিন আবার পাবে ফিরে।

বিজয়ী শক্তি হিসেবে ধরায় প্রতিষ্ঠা পাবে আলো,
জগৎ থেকে ঘুচিয়ে যাবে সমাজের সব কালো।
শোষণ মুক্ত সমাজ আবার গড়ে উঠবে হায়,
অধীর চিত্তে বঙ্গদেশ রয়েছে তারি প্রত্যাশায়।

লিখেছেনঃ জলস্পর্শী তটিনী

Facebook Comments

You may also like

এমপি প্রার্থী নিজেই করছেন মাইকিং সঙ্গী অটো চালক!

বিশেষ সংবাদদাতাঃ  আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুড়িগ্রাম-১