বীরগঞ্জ নিউজ ডেস্কঃ

চলতি বছরে জেএসসি এবং আসন্ন এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় বহুনির্বাচনী প্রশ্ন (এমসিকিউ) থাকলেও আগামী বছরের জেএসসিসহ অন্য পাবলিক পরীক্ষাগুলোয় এমসিকিউ তুলে দেয়ার চিন্তাভাবনা করছে শিক্ষা মন্ত্রনালয়। শিগগিরই এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসতে পারে বলে জানিয়েছেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন।

আজ সোমবার (২৮ মে) জাতীয় কারিকুলাম সমন্বয় কমিটির (এনসিসিসি)  আয়োজিত এক সভায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন তিনি।

সোহরাব হোসাইন বলেন, পুরনো পদ্ধতিতে আরও এক বছর পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। তারপর এমসিকিউ তুলে দিয়ে সম্পূর্ণ লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে জেএসসি-জেডিসি, এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার আয়োজন করা হতে পারে। তবে নতুনভাবে শিক্ষার্থীদের ওপর কিছু চাপিয়ে দেয়া হবে না। বরং নতুনভাবে কারিকুলাম সংশোধন করে চাপ কমিয়ে আনা হবে। সিলেবাসও কিছু কমিয়ে আনা হবে।

এ সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, যে কোনো মৌলিক সিদ্ধান্ত সংযোজন-বিয়োজনের ঘোষণা একটি যৌক্তিক সময় আগে দিতে হয়। আসন্ন জেএসসি-জেডিসিতে এমসিকিউ বাতিলের ঘোষণাটি দেয়ার সে সময়টা এখন আর নেই। তবে ভবিষ্যতে এমসিকিউ না থাকার সিদ্ধান্ত নেয়া হলে সে ঘোষণা যথাসময়ে দেয়া হবে।

ওই সভায় আসন্ন জেএসসি পরীক্ষায় বিষয় ও নম্বর কমানোর ব্যাপারে শিক্ষা বোর্ডগুলোর প্রস্তাবের ওপর দীর্ঘ আলোচনা হয়। আলোচনা শেষ না হওয়ায় সভা মুলতবি করা হয়। ৩১ মে এনসিসিসির সভা পুনরায় বসবে।

সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সোহরাব হোসাইন বলেন, শিক্ষার্থীরা সারা বছর পড়ালেখা করে কী বুঝেছে, তা পরীক্ষার মাধ্যমে মূল্যায়ন করা হয়ে থাকে। সেখানে এমসিকিউর মাধ্যমে তা মূল্যায়ন করা সম্ভব হয় না। তার ওপর এমসিকিউ নিয়ে নতুন বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। সব কিছু আমলে নিয়ে আমরা এমসিকিউ পরীক্ষা নিয়ে নতুনভাবে ভাবছি। এ পদ্ধতি তুলে দিয়ে সৃজনশীল প্রশ্নে লিখিতভাবে পাবলিক পরীক্ষাগুলো আয়োজন করা হবে।

Facebook Comments

You may also like

এমপি প্রার্থী নিজেই করছেন মাইকিং সঙ্গী অটো চালক!

বিশেষ সংবাদদাতাঃ  আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুড়িগ্রাম-১